-শিক্ষা নীতি

‘বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক করা উচিত’
উচ্চশিক্ষায় যুগোপযোগী ধারা অব্যাহত রাখতে ৯টি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যদের সংগঠন ফাউন্ডেশন ফর লার্নিং, টিচিং অ্যান্ড রিসার্চ (এফএলটিআর) আয়োজিত তিন দিনব্যপী (টিচিং ফর অ্যাক্টিভ লার্নিং) সার্টিফিকেট কোর্স সম্পন্ন হয়েছে।
ষষ্ঠবারের মতো আয়োজিত এই কোর্সে এবার পাবলিক ও প্রাইভেট পর্যায়ের মোট ১১টি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশিক্ষণার্থী অংশ নেন। যার সার্টিফিকেট বিতরণী অনুষ্ঠান মঙ্গলবার গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হয়।
ফাউন্ডেশনের ভাইস-চেয়ারপার্সন ও আইইউবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম ওমর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. আতিকুল ইসলাম প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বিশ্বের অনেক দেশেই শিক্ষকতা পেশায় প্রবেশের শর্ত হলো প্রশিক্ষণ। যদিও বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষায় এর প্রচলন নেই বললেই চলে। কিছু ক্ষেত্রে চর্চা হলেও অধিকাংশ শিক্ষকই প্রশিক্ষণ ছাড়া পাঠদান করছেন। যা শিক্ষাব্যবস্থার ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। এই অবস্থার উত্তরণে অন্তত উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তথা বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদানকারী নতুন শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক করা উচিত। তবেই শিক্ষার সামগ্রিক ক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে।
অনুষ্ঠানে সিটি ইউনিভার্সিটি উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহ-ই-আলম, ব্রিটিশ কাউন্সিলের ডিরেক্টর এক্সাম সেবাস্তিয়ান পিয়ার্স, গ্রিন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য ও কোর্স ডিরেক্টর অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির, আইইউবিএটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. আব্দুর রব, ইউল্যাবের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ইমরান রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।তিনব্যাপী এই প্রশিক্ষণ কোর্সে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও বরেণ্য প্রশিক্ষকরা সেশন পরিচালনা করেন। যাতে কোর্স ডিটেক্টর হিসেবে মুখ্য ফ্যাসিলেটেটরের ভূমিকা পালন করেন অধ্যাপক গোলাম সামদানী ফকির। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

২৩ জুলাই ২০১৯
জাগো নিউস.কম

Comments

No comments yet.

Be first to leave your comment!

Nickname:

E-mail:

Homepage:

Your comment:

Add your comment